Bishanakandi Sylhet
Bishanakandi-Sylhet

বিছানাকান্দি – সিলেটের স্বর্গ

লিখেছেনঃ Mamunur Rahman Tonmoy

বিছানাকান্দি – আমার পাহাড় এর প্রতি তেমন কোন ভালো-লাগা কাজ করে নাই। আর সত্যিকথা বলতে পাহাড় এর মাঝে যাওয়ার সুযোগটা একটু কম এই হয়েছে।

তবে, সিলেট শহর আর এর আশপাশ দেখে ভালো-লাগার পরিমানটা অল্প অল্প করে বাড়তে থাকে যতক্ষন না আমি বিছানা-কান্দি দেখেছি।
মেঘালয় এর প্রাচির ঘেষে যায়গা- টুকু অনেক ছোট আর নিড়ি-বিলি। কিন্তু, কথায় আছে না ছোট মরিচের ঝাল বেশি। ঠিক তাই হয়েছে, দুই পাহাড় এর দিকে তাকিয়ে শুধু এইটাই মনে হয়েছে যেন বার বার তাকিয়ে থাকি। আর যদি সুযোগ হয় তাহলে এইখানে থেকে যাই। মাশা আল্লাহ।

আসল কথা: বিছানাকান্দি সর্ম্পকে এক এক এর ভিন্নি মতামত হবে এইটাই স্বাভাবিক। কিন্তু কিছু জিনিষ যা আমি আর আমাদের সাথের লোক-জন দেখিছি তাই শেয়ার করতে চাই।

Bishanakandi Sylhet
Bishanakandi-Sylhet

বিছানাকান্দি যাবার সিস্টেম:
ট্যুর : ২দিন ১ রাত
বাজেট : ২৫০০ টাকা +
১. ঢাকা থেকে সরাসরি সিলেট রুটের বাস ধরে সিলেট শহর এ প্রথমে যেতে হবে। এজন্য ঢাকার থেকে এনা, হানিফ এই দুইটি বাস মোটামুটি ভালো। ১২টার গাড়ি আপনাকে সকাল ৬টার আশে- পাশেই সিলেট শহর এ নামিয়ে দিবে।

২. সিলেট এ মাজার রোডে হোটেল এর ভাড়া অনেক বেশি। যদি আপনারা অল্পটাকায় হোটেল খুজতে চান, তাহলে আম্বরখানা রোড এ খুজতে পারেন।

৩. খাওয়া – দাওয়া : যার যেমন ইচ্ছা! তবে পাচ- ভাই রেস্টুরেন্ট এ অনেক অল্পটাকায় সব থেকে সুস্বাদ খাবার পাবেন।
* অব্যশই বেগুনের চিপ্স আর চিকেন এ বড়া ট্রাই করবেন।

 

৪. অফ টু বিছানাকান্দি : সবাই বলে সি, এন জি, কিন্তু আমি আসি একটু ভিন্ন কথায়।
* প্রথমত সিলেট শহর থেকে বিছানা- কান্দি যেতে সময় লাগে ১ ঘন্টা ৩০ মিনিট থেকে রাস্তার কন্ডিশন এ ২ ঘন্টা লাগতে পারে।
রাস্তা এতই বাজে যে সি, এন, জি যদি গ্রুপ ট্যুর দিতে চান তবে আর ৫০০/৭০০টাকা এক্ট্রা দিলে ভালো নোওয়া/ হাইচ গাড়ি পাওয়া সম্ভব। অনেক আরামে যেতে পারবেন। যা আপনাকে বিছানাকান্দিতে ঘুরতে ট্রায়াড ফিল দিবে না।

৫. নৌকা তে নদী পাড়: এইটাই বিছানা – কান্দির আসল সুন্দরতা। দুই পাশ এ পাহাড় মাঝখানে আপনি ও আপনার নোকা। আল্লাহ নিয়ামত সত্যি অনেক সুন্দর। অবশ্যই যারা যাবেন তারা প্রত্যেকে চেষ্টা করবেন নদী ঘাটে গিয়ে নৌকা ঠিক করার জন্য। অনেক দালাল আছে যারা ছোট ছোট নৌকা ভাড়া করে বিপদে ফেলার ধান্দায় থাকে।

আমি এই যায়গায় সবাইকে একটু মনোযোগ দেয়ার কথা বলবো। মনে রাখবেন আপনি যেই যায়গায় যাচ্ছেন তা বাংলাদেশ- ভারত এর সীমানা। অনেক যায়গায় সাদা পতাকা ঝুলছে, No Mans Land! যায়গা গুলো এড়িয়ে চলবেন। ভয় পাবেন না! এইটা ট্যুরিষ্ট স্পট। তাই আমাদের বিজিবি আপনাকে সবসময় সয়ায়তা করবেন।

★ প্রতারোক ও ধান্দাবাজ: আপনি বিছানা- কান্দি যাবার পর সেইখানে অনেক দোকান দেখবেন। অইগুলো ইন্ডিয়ান পন্যর দোকান। হ্যা! বাংলা টাকাতেই কিনতে পারবেন। আর দামেও তুলনায় অনেক সস্তা। *বিছানাকান্দির আশে পাশে প্রতারোক এর অভাব নাই। আপনাকে প্রথমে ড্রাগস, এলকোহল এর অফার করবে। এমন দাম অফার করবে যা আপনি কল্পনায় ভাবেন নাই। আর যদি আপনি এইসব এ ইন্টারেস্ট না থাকে তাহলে আপনাকে চকলেট, লজেন্স এইসব অনেক কম মুল্যে অফার করে আপনার থেকে টাকা নিয়ে ফুট। ফুট মানে ফুট, রিয়েল লাইফে ম্যাজিক দেখাবে।
যদি কিছু কিনতেই হয়। দোকানগুলো থেকে কিনুন।

খরচ : মাথা-পিছু ১ জনের।

১. ঢাকা- সিলেট : হানিফ বাস : ৪৫০টাকা ( রাত : ১২টায় বাস)
২.হোটেল খরচ : ২৩০টাকা : (১ রাত) : ৭ জনের গ্রুপ।
৩. খাবার : দুপুর আর রাত : পাচ- ভাই : ১০০/১৩০টাকা: প্রতিবেলা : আলহামদুলিল্লাহ।
৪. সকালে নাস্তা : ৩০/৫০ টাকা
৫. গাড়িভাড়া : ৫০০টাকা : নোওয়া : (৭জনের গ্রুপ)
৬.নৌকা ভাড়া : ১৫০টাকা: চেয়ার : (৭জনের গ্রুপ)
৭. আশে- পাশে সিলেট শহর এ ঘুরারমত স্টেডিয়াম আছে আর একটা সুন্দর চা বাগান আছে। ১০০/১৫০ টাকা হলে সি, এন জি আর গাইড এর খরচ হয়ে যাবে।
৮.সিলেট – ঢাকা : ট্রেন: উপবন : ৫০০টাকা (ব্লাক) : রাত ১০টায়।

এ ছাড়া হাল্কা নাস্তা, চা, শপিং আমি কখনো ট্যুর এ ইনক্লুড করি না। এইটা যার যার, তার তার।

বি:দ্র: আল্লাহ অশেষ সৃষ্টি দেখে আলহামদুলিল্লাহ বলতে ভুলবেন না। দয়াকরে শুধু বিছানাকান্দি না, আপনি যেখানেই ট্রাভেল করুন না কেন, ময়লা – আবর্জনা যেখানে সেখানে ফেলবেন না।
আর হ্যা! সবসময় হাল্কা খাবার ও প্রচুর পানি পান করার চেষ্টা করবেন।

About sinan

Check Also

kaptai-lake

কাপ্তাই লেক ভ্রমণ | চট্রগ্রাম

কাপ্তাই লেক ট্যুর ১০ মে পরীক্ষা শেষ করে ৩ বন্ধু রাতের ট্রেনে রওনা দিলাম চট্টগ্রামের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *